মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২ ইং         ০১:১০ অপরাহ্ন
  • মেনু নির্বাচন করুন

    চোরা বালির গুপ্ত গর্তের কারণে কক্সবাজার সমুদ্রে গোসল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে!


    প্রকাশিতঃ 14 May 2022 ইং
    শেয়ার করুনঃ

    কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ


    বর্তমানে কক্সবাজার সমুদ্রে অসংখ্য চোরা গর্ত সৃষ্টি হচ্ছে। ভাটার সময় উল্টো স্রোতের কারণে এই গর্ত সৃষ্টি হয়ে থাকে। আবার জোয়ারের সময় ধীরে ধীরে এই চোরা গর্ত ভরে যায়। জোয়ারের সময় এই গর্ত হারিয়ে যায় তাই এই গর্তের খুবই কম দেখা মেলে এই গর্ত দেখা যায় না বলে স্থানীয়ভাবে এর নাম দেয়া হয়েছে চোরা বালুর গুপ্ত গর্ত। ঘূর্ণিয়মান এই চোরা গর্তে পড়লে কেউ সহজে বেঁচে উঠতে পারে না। কারণ এই গর্তে শুধু পানি ঘুরে না বালিও ঘুরে। যার কারণে নাকে মুখে বালি ঢুকে নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। তাই বর্তমানে সমুদ্রে স্নান করতে নামার আগে জোয়ার, ভাটা দেখে নামতে হবে। 

    ভুলেও  ভাটা অবস্থায় সমুদ্রে গোসল করা যাবে না এতে মৃত্যুর ঝুঁকি অনেক বেশি। চোরাবালি পানি ও তরল কাদা মিশ্রিত একটি গর্ত, ভুলেও কেউ এই গর্তে পড়লে কিছু বুঝে ওঠার আগে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে সে চোরাবালির মধ্যেই ডুবে যায়। এই চোরাবালির ফাঁদে ভুলে ও একবার পা পড়লে মানুষের আর নিস্তার থাকে না ডুবে যেতে হয় বালির ভেতর। কেনো মানুষ যদি চোরাবালির ধারেকাছে যায় তাহলে শরীরের চাপে ওই বালি ক্রমে সরে যেতে থাকে। তাই গর্তে পড়ে গেলে মানুষ শত চেষ্টা করেও আর উপরে ওঠতে বেশির ভাগ মানুষ ব্যর্থ হন। সময় মতো কেউ এগিয়ে না এলে নিশ্চিত মৃত্যুকোলে ঢলে পড়তে হয়। সাধারণত অবস্থায় ও সমুদ্রের ধারের বালিতে যদি কেউ দাঁড়িয়ে থাকে তাহলে খানিকক্ষণ পর দেখা যাবে ধীরে ধীরে তার পা বালির ভেতর বসে যাচ্ছে বা ডুবে যাচ্ছে এমনটা। সমুদ্রে গোসল করতে নেমে এই চোরাবালির গতে পড়ে সমুদ্রে প্রাণ গিয়েছে অনেকের। সাধারণ চোরাবালি শুধু সমুদ্রে নয় নদীতে ও রয়েছে। 

    চোরাবালিতে কেউ আটকে গেলে যে বিষয় গুলো মাথায় রাখতে হবে। ১| একদম অধৈর্য্যে হওয়া যাবে না। অধৈর্য্যে হয়ে হাত-পা বেশি নাড়লে আরো বেশি আটকে যাওয়ার সম্ভবনা অনেক বেশি। ২| চোরাবালি গভীরতা অনেক বেশি হয়, তাই পানিতে আমরা যেভাবে সাঁতার কাটি ঠিক সেভাবে নিজের শরীরটাকে অনুভূমিক করে ফেলতে হব। তারপর ধীরে ধীরে সাঁতারে চোরাবালির বাইরে আসার চেষ্টা করতে হবে।

    মুক্তি / ওমর ফারুক 


    আপনার মন্তব্য লিখুন
    © 2022 muktir71news.com All Right Reserved.
    Developed By Skill Based IT